Continue Reading ভালবাসার গন্ধ

ভালবাসার গন্ধ

ভালবাসার গন্ধ ।। লেখা : অতনু কর্মকার —— এক ——“আচ্ছা! ভালবাসার কি কোনো গন্ধ হয়? তুই পেয়েছিস কখনও!” অর্কর দিকে না তাকিয়েই প্রশ্নটা ছুঁড়ে দিল মানভি।অর্ক মানে অর্কজিৎ, ওরা দুজনেই একটা স্থানীয় খবরের কাগজে চাকরি করে। অর্ক হল ক্যামেরাম্যান আর মানভি জার্নালিস্ট। ফিল্ডের কাজটা ওরা ইদানিং একসাথেই শুরু করেছে, এর…

Continue Reading বেগুনকোদর রেলওয়ে স্টেশন

বেগুনকোদর রেলওয়ে স্টেশন

বেগুনকোদর রেলওয়ে স্টেশন লেখা : সুনিপা চ্যাটার্জি যদি ইন্টারনেটে পৃথিবীর দশটি ভুতুড়ে রেলওয়ে স্টেশনের নাম খোঁজ করা যায় তবে পুরুলিয়ার এই বেগুনকোদর রেলওয়ে স্টেশনের নাম অবশ্যই আসবে। এই স্টেশনটি পড়ে পুরুলিয়া জেলায়, ঝালদা এবং কোটশিতা স্টেশনের মাঝখানে। এটি একটি হল্ট স্টেশন, এখানে কোন এক্সপ্রেস গাড়ি থামে না। শুধু কিছু প্যাসেঞ্জার…

Continue Reading যদি এমন হতো

যদি এমন হতো

যদি এমন হতো ।। লেখা : প্রমিতা মান্না -“রোহান, রোহান। উঠ! উঠ! সকাল হয়ে গেছে পড়তে বসতে হবে তো নাকি!” রোহান পড়াশোনা খেলাধূলা সবেতেই খুব ভালো। একদিন রোহান দুপুরে স্বপ্ন দেখে সে তার তিনটে হাত দিয়ে অংক করছে, হঠাৎ মা ডাকায় রোহানের স্বপ্ন ভেঙে যায়, সে মাকে বলে স্বপ্নের কথা,…

Continue Reading আলোর বিচ্ছুরণ

আলোর বিচ্ছুরণ

আলোর বিচ্ছুরণ।। লেখা : অমিত কুমার জানা দুপুর থেকে মেঘ কালো হয়ে প্রবল বৃষ্টি শুরু হলো। অষ্টম শ্রেণীর সায়ন প্রতিদিন বিকেলে তাদের গ্ৰামের মাঠে ফুটবল খেলতে যায়। আজ তার ছোট্ট ভাই সানু বায়না ধরলো সেও মাঠে যাবে। সায়ন সানুকে বললো যে ও খুব ছোট্ট, ওকে বন্ধুরা খেলতে নেবে না। তবুও…

Continue Reading ক্লাসের বন্ধু

ক্লাসের বন্ধু

ক্লাসের বন্ধু ।। লেখা : দীপঙ্কর বেরা -“আমগাছের ডালে আটকে যাওয়া ঘুড়িটা যে পাড়তে পারবে তাকে আমি এই চকলেটটা দেব।”রকির এই কথায় বিলু বলে, “আরে ঘুড়িটা তো ছিঁড়ে গেছে, মাঞ্জা কাটা। তাহলে ওই ঘুড়ি নিয়ে কি করবি?”“সে পরে দেখা যাবে? কে পারবি বল?”মিতুল, অর্ণব, আর্য, পলি, সান্তা, সবাই চুপচাপ দাঁড়িয়ে…

Continue Reading অভিমান

অভিমান

অভিমান ।। লেখা : শংকর দেবনাথ সামনে বইখাতা খোলা। টিচার আসবেন পড়াতে। বিকেল পাঁচটায়। হোমওয়ার্কটা এখুনি করতে হবে। নইলে…।কিন্তু কিছুতেই ছোট্ট শ্রমণের মন বসতে চাইছে না পড়াতে। বারবার যেন আনমনা হয়ে যাচ্ছে। বইয়ের দিকে তাকালেই মনে হচ্ছে অক্ষরগুলো যেন ওকে হাঁ করে গিলতে আসছে।হঠাৎ খোলা জানালা দিয়ে বাতাস আসে। ওর…

Continue Reading অবিনশ্বর গামছাওয়ালা

অবিনশ্বর গামছাওয়ালা

অবিনশ্বর গামছাওয়ালা ।। পলাশ সরকার অবিনশ্বর চক্রবর্তী, ওরফে অবিনশ্বর গামছাওয়ালা, পিতা স্বর্গীয় বিশ্বেশ্বর চক্রবর্তী, বাসভূমি বামুনপাড়া, গোয়ালটুলী। পেশায় গোয়ালা। আজ বামুনপাড়া গ্রামে পঞ্চায়েত বসেছে। প্রায় তিনশো গ্রামবাসীর জমায়েত হয়েছে। সবাই বেশ কৌতুহলী। আজ অবিনশ্বরের বিচার হবে। এখন শুধু পঞ্চায়েত প্রধানের আসার অপেক্ষা। সকলের মধ্যে বেশ গুঞ্জন চলছে, আজ অবিনশ্বরের উচিত…

Continue Reading পরম্পরা

পরম্পরা

পরম্পরা ।। লেখা : শ্রেয়া বাগচী আজ অক্ষয় তৃতীয়ার দিনে উদ্বোধন হ’ল। থুড়ি, উদ্বোধন না ওপেনিং হ’ল ‘সিটি কাফে’র। বেলুন সাজিয়ে, বেলুন ফাটিয়ে, কেক কেটে, মাথায় টুপি পরে, বেশ একটা আনন্দ অনুষ্ঠান হ’ল আজ। আর যাঁরা লাকি কাস্টমার আছেন তাঁরা যে কোনো কেনাকাটায় টোয়েন্টি পার্সেন্ট ছাড় পেলেন । তা বিক্রি…

Continue Reading সিঁদুর

সিঁদুর

সিঁদুর ।। লেখা : রুমি বন্দ্যোপাধ্যায় সিঁদুর রুমি বন্দ্যোপাধ্যায় দু’বছর হল ললিতার স্বামী হঠাৎই গত হলেন। সময়টাও তাই আর আগের মত তেমন অনুরাগ প্রিয় রইল না। লাল রং বড় পছন্দের ছিল তাঁর। এই‌ বয়েস‌ও এক মাথা সিঁদুর পড়তেন তিনি, সাথে একটা বড় টিপ। স্বামী মারা যাওয়ার পর তার সেগুন কাঠের…

Continue Reading মরচে ধরা রহস্য (পর্ব ৬ )

মরচে ধরা রহস্য (পর্ব ৬ )

মরচে ধরা রহস্য (পর্ব ৬ )লেখা : শান্তনু দাস প্রচ্ছদ : অনিন্দিতা রায় কর্মকার আগে যা ঘটেছে সোমনীল বাবু এক নারীকে দেখে অজানা আতঙ্কে মারা গেলেন। ইন্দ্রদার ঘরে সেই নারী মার্টিনা ক্যাম্পবেল এসে গুপ্তধনের ধাঁধা সমাধানের জন্য শাঁসিয়ে যায়। খোঁজখবর করে জানা গেল, সোমনীল জীবনের বেশ কিছু সময় আমেরিকায় কাটিয়েছেন।…

Continue Reading মরচে ধরা রহস্য (পর্ব ৫ )

মরচে ধরা রহস্য (পর্ব ৫ )

মরচে ধরা রহস্য (পর্ব ৫ )লেখা : শান্তনু দাস প্রচ্ছদ : অনিন্দিতা রায় কর্মকার আগে যা ঘটেছে বিপিন চ্যাটার্জির বাবা সোমনীল বাবু এক নারীকে দেখে অজানা আতঙ্কে মারা গেলেন। তাঁর শেষ কথাগুলো, ‘জুল, হার, ক্ষমা, গুপ্তধন’ যে অসংলগ্ন কথা নয় তা ইন্দ্রদার ঘরে মার্টিনা ক্যাম্পবেলের আবির্ভাব এবং গুপ্তধনের ধাঁধা সমাধানের…

Continue Reading মরচে ধরা রহস্য (পর্ব ৪ )

মরচে ধরা রহস্য (পর্ব ৪ )

মরচে ধরা রহস্য (পর্ব ৪ )লেখা : শান্তনু দাস প্রচ্ছদ : অনিন্দিতা রায় কর্মকার আগে যা ঘটেছে বিপিন চ্যাটার্জির বাবা সোমনীল বাবু এক নারীকে দেখে অজানা আতঙ্কে মারা গেলেন। তাঁর শেষ কথাগুলো, ‘জুল, হার, ক্ষমা, গুপ্তধন’ যে অসংলগ্ন কথা নয় তা ইন্দ্রদার ঘরে মার্টিনা ক্যাম্পবেলের আবির্ভাব এবং গুপ্তধনের ধাঁধা সমাধানের…

Continue Reading মরচে ধরা রহস্য (পর্ব ৩ )

মরচে ধরা রহস্য (পর্ব ৩ )

মরচে ধরা রহস্য (পর্ব ৩ )লেখা : শান্তনু দাস প্রচ্ছদ : অনিন্দিতা রায় কর্মকার আগে যা ঘটেছে বিপিন চ্যাটার্জির বাবা সোমনীল বাবু এক নারীকে দেখে অজানা আতঙ্কে শেষ পর্যন্ত মারা গেলেন। তাঁর শেষ কথাগুলো, ‘জুল, হার, ক্ষমা, গুপ্তধন’ কি অসংলগ্ন কথা? সোমনীলের ঘরে চোর আসা আর ইন্দ্রদার ঘরে মার্টিনা ক্যাম্পবেলের…

Continue Reading মরচে ধরা রহস্য (পর্ব ২ )

মরচে ধরা রহস্য (পর্ব ২ )

মরচে ধরা রহস্য (পর্ব ২ )লেখা : শান্তনু দাস প্রচ্ছদ : অনিন্দিতা রায় কর্মকার আগে যা ঘটেছে এক ঝড় জলের রাতে সোমনীল বাবুর বাড়িতে এক মহিলা ছায়া মূর্তির আবির্ভাব। পনেরো বছরের পুরোনো স্মৃতি তাজা হয়ে গেল ভয়ার্ত সোমনীল বাবুর মনে। তারপর … পর্ব ২ – গুপ্তধনের সংকেত অবাক দৃষ্টিতে এক…

Continue Reading মরচে ধরা রহস্য (পর্ব ১ )

মরচে ধরা রহস্য (পর্ব ১ )

মরচে ধরা রহস্য (পর্ব ১ )লেখা : শান্তনু দাস প্রচ্ছদ : অনিন্দিতা রায় কর্মকার পর্ব ১ – সেই মুখ দেয়ালঘড়ির একটা ঘন্টাধনি সমস্ত নীরবতা ভঙ্গ করে কেঁপে কেঁপে বাতাসে মিশে গেল। কদিন থেকে রাত্রিতে ঘুমোতে পারছেন না সোমনীল বাবু। পুরনো সেই ভয়ংকর স্মৃতিটা বারবার মনকে নাড়া দিচ্ছে। কদিন থেকে রাতে…