Continue Reading বাবা

বাবা

বাবা :: কলমে – প্রীতম ঘোষাল (ব্যানার্জী) কষ্ট করে করলে বড়ো দিয়ে ভালোবাসা, পারলাম না করতে পূরন তোমারই সেই আশা। নিজের খাবার আমায় দিয়ে রইলে নিজে ক্ষুধার্ত, মনে ছিল ভারী সাধ ছেলে দেখবে যথার্থ। ছেলের জন্য ত্যাজ্বিলে তুমি নিজের সব ইচ্ছা, সেই ছেলে কি তোমার জন্য করলো কিছু ভিক্ষা ?…

Continue Reading Why are you crying?

Why are you crying?

Why are you crying ? Written by Prithwisha Why are you crying?When you knowNo one is there to realise the reason.Your eyes will bulge out,Your soul will excruciate.You will lose your beauty,Your feelings, Your sight. Why are you crying?When you knowYour confidantes are ever diligent,with their own thinking , own perspectives.They…

Continue Reading মেঘলা স্বপ্ন

মেঘলা স্বপ্ন

মেঘলা স্বপ্ন :: লেখা – পৃথ্বীশা সরকার তার চোখে দেখেছিলাম,এক নাম না জানা মায়ার আলোড়নযে মায়া বাধতে পারেশত ইচ্ছের শক্ত বাধন। দূর হতে দেখেছি তাকেশব্দের খেলা খেলিনি,হয়ে রয়েছি বাকহারামনের কথা বলতে পারিনি। এক মুক্ত আকাশের স্বপ্নে মেতেছিআকাশটা ছিল মেঘলা,স্বপ্ন আমার হয়নি পূরণহয়েছি ভিড়ের মাঝে একলা। নামটি তাহার জানা হয়নি,ঠিকানাটিও নয়,এ…

Continue Reading একটি সিঁড়িভাঙ্গা অঙ্কের গল্প

একটি সিঁড়িভাঙ্গা অঙ্কের গল্প

একটি সিঁড়িভাঙ্গা অঙ্কের গল্প :: লেখা : অতনু কর্মকার যা দেবী সর্বভূতেষু বুদ্ধিরূপেণ সমস্থিথানমস্থ্যসই নমস্থ্যসই নমস্থ্যসই নম নমঃ …যা দেবী সর্বভূতেষু শক্তিরূপেণ সমস্থিথানমস্থ্যসই নমস্থ্যসই নমস্থ্যসই নম নমঃ …যা দেবী সর্বভূতেষু শান্তিরূপেণ সমস্থিথানমস্থ্যসই নমস্থ্যসই নমস্থ্যসই নম নমঃ … সামনের প্যান্ডেল থেকে মহালয়ার চন্ডীশ্লোক ভেসে আসছে। প্রতিটা শব্দ কবিতার গায়ে যেন কাঁটার…

Continue Reading স্বপ্ন বিহার

স্বপ্ন বিহার

স্বপ্ন বিহার || কলমে: সাগর চৌধুরী হঠাৎ দেখা সেদিন। তবে শহরের সাজানো রাস্তার ধারে নয়,প্রত্যন্ত এক পদ্ম পুকুর পাড়ে।বৃষ্টিভেজা ধুলির গন্ধ মেখে আমি চলেছি গ্রাম হতে গ্রামান্তরে।হঠাৎ তোমার সুরভি মাখা উপস্থিতি ঠাঁই পেল মোর কিংশুক হৃদয়ে।তৃষ্ণার্ত নয়ন অনুভব করল তোমার স্নিগ্ধ উপস্থিতি।কৃষ্ণ পরিচ্ছদে হলুদ ওড়নায় বসন্ত মেখে তুমি এক ব্যাকুল…

Continue Reading অন্য বসন্ত

অন্য বসন্ত

অন্য বসন্ত ll সৌকর্য সামাদ আমি গ্রীলের ফাঁকে আতঙ্কের কুয়াশা,দেখে ছবির খাতায় মৃতের শহর আঁকি,আজ ধূসর টুকু আবার অনেক সবুজ,বহু বসন্তে ঘর ফেরেনি জোনাকি।। রাস্তা হেঁটে, পড়েই ফেলি মুখোশ,হাওয়ায় বাড়ে, ছোবল মারে বিষ,জলের মুখে গ্লানির আবর্জনা,একুল ওকুল ভাসছে অহর্নিশ।। সীমান্তে আর সিমন্তে মেঘ করে,এই আগামীর সূর্য খোঁজা বাকি,পথ হারিয়ে, ভুল…

Continue Reading কর্ণ উবাচ

কর্ণ উবাচ

কর্ণ উবাচলেখক – অভীক সরকার তুমি পেয়েছ ভগবানের বর,আমি পেয়েছি মাটির অভিশাপ।ধর্মযুদ্ধে করিলাম প্রাণত্যাগ,করেছি আমি এমন কি পাপ?তুমি জন্মেছ সোনার মহলে,আমি গঙ্গায় ভেসে করেছি বিলাপ।সুতপুত্র হয়ে করেছি বিশ্বজয়,করেছি আমি এমন কি পাপ?ক্ষত্রিয় হয়ে পেলে উত্তম শিক্ষা,পরিচয় গোপন করে পেলাম অভিশাপ।গুরু আমায় করল না আশীর্বাদ,করেছি আমি এমন কি পাপ?সখা ছিল তোমার শ্রীকৃষ্ণ,দুর্যোধন…

Continue Reading ভালবাসার গন্ধ

ভালবাসার গন্ধ

ভালবাসার গন্ধ ।। লেখা : অতনু কর্মকার —— এক ——“আচ্ছা! ভালবাসার কি কোনো গন্ধ হয়? তুই পেয়েছিস কখনও!” অর্কর দিকে না তাকিয়েই প্রশ্নটা ছুঁড়ে দিল মানভি।অর্ক মানে অর্কজিৎ, ওরা দুজনেই একটা স্থানীয় খবরের কাগজে চাকরি করে। অর্ক হল ক্যামেরাম্যান আর মানভি জার্নালিস্ট। ফিল্ডের কাজটা ওরা ইদানিং একসাথেই শুরু করেছে, এর…

Continue Reading অন্তরের আলো

অন্তরের আলো

অন্তরের আলো ।। লেখক – অভীক সরকার তুই নিজেকে খোঁজ,তুই হোস না হতাশ।বিশ্বাস রাখ নিজের উপর,তোর মধ্যে যে ভগবানের বাস। ভেঙে ফেল সব শিকল,নিজেকে কর ভয় হতে মুক্ত।বিজয় একদিন তোর হবে,হয়তো এই যুদ্ধে ঝরবে রক্ত। চরিত্র তোর পবিত্র যখন,তবে কেন তোর এই দশা?এই পাপিষ্ঠদের সঙ্গে তুলনা করে,কেন বাড়াচ্ছিস নিজের হতাশা?…

Continue Reading বৃষ্টি তুমি এলে

বৃষ্টি তুমি এলে

বৃষ্টি তুমি এলেকলমে:- কবি ও সাহিত্যিক সুলতা পাত্র রুপসা দিঘির পাড়ে, কালবৈশাখী ঝড়ে ভিজলাম আমি,তোমরা হয়তো বলবে আমি কবি, এক প্রকৃতিপ্রেমী।আমার মন খারাপ, হয়তো বৃষ্টি সেটা বোঝে,চোখের জল মুছিয়ে বলল, যাও মন দাও গিয়ে নিজের কাজে।ঘরে ফিরে যাও মন দিয়ে খাতা ভর্তি করে লেখো আবার,ভীষণ ব্যস্ত মোরা কাজ সেরে, তোমার…

Continue Reading ঈবাদাহ্ র ঈবাদাত

ঈবাদাহ্ র ঈবাদাত

ঈবাদাহ্ র ঈবাদাত ।। লেখা : রবীন জাকারিয়া আমাদের একমাত্র কন্যা৷ বাইয়াতুন ঈবাদাহ্৷ সকলে ঈবাদাহ্ নামেই ডাকে৷ ছোট্ট মেয়ে৷ ভাঙ্গা ভাঙ্গা কথা বলে৷ মিষ্টি লাগে৷ তাই সকলে ওকে খুব ভালবাসে৷ এমনকি ওর স্কুলের শিক্ষকরাও৷ ও শহরের একটি মান সম্মত স্কুলের নার্সারিতে পড়ে৷ স্কুলটির নাম নর্থ ব্রিজ স্কুল৷ ওর ক্লাশে ও…

Continue Reading দূরে কোথায়

দূরে কোথায়

দূরে কোথায় ।। লেখা : অতনু কর্মকার “দূরে কোথায় দূরে দূরে,আমার মন বেড়ায় গো ঘুরে ঘুরে!দূরে কোথায় দূরে দূরে” …. গানটা পাশের ঘর থেকে গ্রামোফোনে বাজছে, ঠাকুর্দার ওই একটি জিনিসই পিসি বাঁচিয়ে রাখতে পেরেছে এখনও পর্যন্ত, বাকি সব জিনিস বাড়ির লোকেরা বিক্রিবাটা করে সাফ করে দিয়েছে। হৈমন্তীর চিলেকোঠার এই দুটো…

Continue Reading প্রেমে অপ্রেমে

প্রেমে অপ্রেমে

প্রেমে অপ্রেমে ।। লেখা – সুদীপ দাশ প্রেম কি ছিল কোনদিন?বহুবাসনায় প্রাণপণে চেয়েছি যে তাকে,কখনো পেয়েছি কি গন্ডুষ ভরা প্রাণ?ছিল দাবি, ছিল আশা, প্রাণহীন বুকে ;অস্ফুট কথা ছিল রঙহীন ঠোঁটে,ছিল না এক সমুদ্র প্রেমের ঢেউ-অথবা নিপাট আটপৌরে চালধোয়া হাতখানি,একবুক ভালোবাসার ছিল যে খাঁই-প্রেমের আবাসে আজধান খাওয়া বুলবুলির কেবল ওড়াউড়ি,দিনান্তের খাজনা…

Continue Reading এখানে একান্তে

এখানে একান্তে

এখানে একান্তে ।। লেখা : অনির্বাণ সরকার এখানে আকাশ নীল,রঙিন ঋতুর ছোঁয়া,জোছনায় দুধ-ধোয়ানীরব লহরী ভরা ঝিল;এখানে পাখির ঝাঁকপ্রতিদিন ভোর-সাথী,দিবালোক সাঁঝবাতি–আমার স্মৃতিতে ধরা থাক।এখানে একান্তে বসেশুধু যেন হয় মনে–নিজেরই নির্বাসনেদূরের তারাও যায় খসে!এখানে জানিয়ে যাই,আমার এ-শান্ত নীড়তোমাদের পৃথিবীরদিগন্তরেখার পরে ঠাঁই।এখানে সময় শেষ;আর ফেরা হবে নাকো,–তোমরাও ভাল থাকো,আমিও ভালই আছি বেশ।

Continue Reading কুয়াশা

কুয়াশা

কুয়াশা ।। লেখা : লাবণী বসু কুয়াশা জমছে তোমার মনেকুয়াশায় ঘেরা সকাল।ভালোবাসা যেন যাচ্ছে সরেসন্দেহ অবিচল। বিস্ময়ের মেঘ দু’চোখে নিদ্রাদিবারাত্রির লুকোচুরি।সময়ের ভারে স্রোতহীন আবেগশিথিল প্রেমের তরী। সেদিনও ছিল এমনই সন্ধ্যাসোহাগের কুহুতান।চেনা স্পর্শের অচেনা গহবরেজমেছিল অভিমান। মধ্যযামিনী ভিজে যায় যেনএকাকিত্বের আলিঙ্গনে।হিমাদ্রিসম স্মৃতির ভারভিড় জমায় প্রাঙ্গণে। অনুভূতির আকাশে ঘনকালো মেঘ ঝাপসা কাঁচের…