Continue Reading

প্রাণের বইপাড়া

  বই নিয়ে গড়ে ওঠা বইপাড়া। সারাদিন ক্লান্ত, ঘর্মাক্ত অথচ কি উদ্দীপিত এই বইপাড়া।  ভেসে আসে কত কথা চারিদিক থেকে – এদিকে আসুন, কি চাই?   কি চাই আমি? পারতাম যদি পুরো বইপাড়াটাই তো আমার চাই।   আস্তে আস্তে শীতে শীতল বইপাড়া ঘুম দিয়েছে। দোকানিরা বিদায় নিয়েছে। যে দু চার…

Continue Reading

সম্পর্ক

    আশ্চর্য ! সম্পর্ক টা টিকেই গেল !   মেয়েটা কালো, ছেলেটা ফর্সা- মেয়েটা কেরানি, ছেলেটা অফিসার- মেয়েটা চঞ্চল, ছেলেটা শান্ত-ধীর- মেয়েটা  মধ্যবিত্ত, ছেলেটার ঘর বড়ো। কেমন করে চোখে ধরলো মেয়েকে।  প্রস্তাব এল বিয়ের।   বিয়ে হল। পালটাল কিছু কিছু , ছেলেটা  বিরক্ত, মেয়েটা ঝগড়ুটে – ছেলেটা গোছানো, মেয়েটা…

Continue Reading

যখন পড়বে না মোর

    নদীর বেগে পাগল-পারা, হব আমি সকল হারা, ধরবো নাকো তোমার খেয়ার ঘাট গুলায়। বাজব হয়ে সুর ভেলা ওই তানপুরায়।।   তখন কেবল আকাশ বয়ে, আসব আমি গন্ধ হয়ে, পড়বে মনে মনের মাঝের গান গুলায়। খেলবো আমি লুটায়ে তোমার প্রাণ ধুলায়।।   বাঁশির সুরে বাজব ঘিরে, পাগল হয়ে ফিরবে…

Continue Reading

এখনো

    শুধু তোমায় ভেবে যে রাত কেটেছে জেগে, সেই রাত শেষে হয়নি এখনো ভোর, ভাবনা এখনো হাসায় কাঁদায় আমায়, এখনো স্বপ্নে খুঁজি সেই বাহুডোর। প্রেম সে তো ছিল অভিধানে লেখা কথা জীবনের পথে তুমি পা ফেলার আগে, তোমার চুলের কালিমা নিয়ে সে রাত, গালের লালিমা এখনো অস্তরাগে। জানি না…

Continue Reading

এ সভ্যতার পর

    স্থির খেয়াল নীরব অবধি জমে তোমার পায়ে ছুঁয়ে থাকা কিনারায় , নতুন দেশের ইতিহাস আর বালুকায়। হঠাৎ আসবে সে- বিগত আমাদের সেই জন্মেরই ছুঁয়ে আসা বাতাস, সাগর তরঙ্গ মিলে – বারবার সঁপেছিলাম যেথা তোমায় নিজের ত্যাগ সর্বস্বে, প্রাচীন বৈরাগ্যের বেশে । সেই জন্মের সিন্দুক বন্দি চিঠিতে, লিখেছিলাম আমার…

Continue Reading

একশো সতেরো বছর পর

    জাবর কাটতে থাকে ফুরিয়ে যাওয়া দিন, গুরুপাক রাতগুলো মুখোশ বন্দি হয়ে পড়ে থাকে, এঁদো গলির  এ কোণে ও কোণে। উচ্ছিষ্টের গন্ধ গায়ে মেখে, যারা হাঁটতে থাকে রোজ; চন্দন সুগন্ধিতে এখন আর ঘুম আসে না। এখানেই তুমি কবিতা লিখতে এসো, ঠেকবে পায়ে রজস্বলা ভোর; নিয়ন আলোয় ঠিক আমারই মুখোমুখি,…

Continue Reading

এবার নিয়ে ছ’বার হল

এবার আমি আশায় ছিলাম সিওর হবে দেখা, সকাল সকাল লাইনে তাই দাঁড়িয়ে ছিলাম একা। কামিয়ে দাড়ি বাগিয়ে টেরী তোমার চয়েস করা পাঞ্জাবিটা চড়িয়ে গায়ে দু চোখ আশায় ভরা।   তেজটা রোদের ক্রমেই বাড়ে লাইন এগোয় ধীরে, আমার দুচোখ তোমায় খোঁজে শতেক লোকের ভীড়ে। একটা সময় অবশেষে পৌঁছে গেলাম আগে, তোমার…

Continue Reading

নক্ষত্র বীথি

  জ্বলে ওঠেনি বুঝি … ওই দিগন্তেই তাও খুঁজি তাঁর সাঁঝের বাতি । ক্রমেই আঁধার আরো ঘন দেখি, বহুদূর তো সেও বটে, এ  আসমান দেখেই পাই স্বান্তনা। ভাবি তার চোখের জল হয়েছে আমার প্রেমের প্রতি, ওই যে সৃষ্টি নক্ষত্র বিথী । লেখাঃ রাজাদিত্য ছবিঃ নীপাঞ্জলি Nakshatra Bithi     |   …