শহর জানে

শহর জানে
লেখা – কেকা
ছবি – আবির দে


বেলাগাম মন অকারণ উড়ু উড়ু,
আজ তোর জন্য প্রথমবার অসংযমী,
ভালোবাসারা হলুদ শাড়ি মাসকারায়
তোর পাঞ্জাবীতে পিছলালে, বসন্ত পঞ্চমী!

এভাবেই ছিল শুরুয়াত, আদ্যোপান্ত
সাধারণ গল্প, কিন্তু আজও স্মৃতিতে জ্যান্ত….

কিছু উপেক্ষা অপেক্ষাতে জেরবার
চাই না তোমাকে তবুও বুকে উত্তেজনা,
শহর জানে অলিতে গলিতে চাপচাপ
রক্তের সাথে চুমু মিশে বাড়ছে আবর্জনা।

Author: admin_plipi

13 thoughts on “শহর জানে

  1. এমন মিষ্টি প্রেম সবার জীবনে আসে। আবার হারিয়েও যায় নানা কারণে। শহরের অলী গলি যা ছিল এক কালের দুটি আশাপূর্ন হৃদয়ের স্বপ্ন বোনার কারখানা তা শুধুই বেদনার্ত স্মৃতি বহন করে ইথার তরঙ্গে।

  2. প্রকৃতির বুকে প্রেম সৃষ্টি। আবার তাতেই বিলীন। বায়োডিগ্রেডএবল অনুভূতি।

  3. অপেক্ষা আর উপেক্ষা দারুন মেলবন্ধন

  4. আজও স্মৃতিতে জ্যান্ত… এটা কানে বাজছে। একটু অন্য ভাবে লিখলে আরো বেশি সুপাঠ্য হত বলে মনে হলো। তবে ভালো লাগলো। খুব মনের কাছ থেকে লেখা।

  5. ভালোবাসা যেন … আসা যাওয়া। প্রেম আসে যায়। কিন্তু মনে তার যে গভীর দাগ থেকে যায়। কথায় বলে সময়ে বিলিয়ে মিলিয়ে দিনু… বাস্তবে বিলিয়েও মিলিয়ে বিধ হয় যায় না। ভাব টা বেশ ভালো ফুটেছে। কিছু শব্দ প্রয়োগ গত উৎকর্ষতা হতেই পারত।
    দয়া করে মন্তব্যে জাজ করবেন না। সৎতার সাথে যা মনে হলো লিখলাম।

  6. হৃদয়স্পর্শী। কিছু লাইন খুব ভালো সেজেছে। যেমন
    তোর পানজাবি…বসন্ত পঞ্চমী।

    ..জ্যান্ত লাইন টি এত মিষ্টি টিউনের সাথে যাচ্ছে না।

    আমি লেখক নই। সাধারণ পাঠক। খুব বেশি বুঝি না। তবে পাণ্ডুলিপি রোজ না হলেও সপ্তাহে কয়েকবার পড়ি। অসাধারন আপনাদের কাজ। খুব ভালো চালিয়ে যান। লেখাটি ভালো লাগলো পরে। মার্জনা করবেন।

  7. আর একটি কথা না বলে পারলাম না। তাই আবার লিখছি। ছবিটি সমন্ধে আমার প্রশংসা করার কিছু নেই। দুটি কারণ…এক, ছবিটি নিজেই অসাধারন। কি পেন্ট বুঝতে পারছি না ফটোতে কিন্তু স্বল্প আয়োজনে বিশালতা।
    দুই, লেখার সাথে ছবিটি যেন ভাষা পেয়েছে। একে লেখাটি দারুন তার ওপর ছবিটি তার দোসর।

  8. Bhalo bhabna, bhalo lekha, chhobi o samantaral. Dhanyabad Pandulipi, anek lekhak o shilpi der protiva k prakashye asar sujog korey deoyar jonyo.

Leave a Reply

Your email address will not be published.