ফিনিক্স

Phoenix-Bengali-Poem-By-Manashi-Ghosh-at-Pandulipi.net

লেখা: মানসী ঘোষ

কভার ডিজাইন: অনিক

বাস্তবতা যদি ফিনিক্স হ’ত !
তার ডানা থেকে আগুন জ্বালিয়ে, ভাত রাঁধতাম।

সেই চুল্লি থেকে দেদার ক্ষুধার্ত
পঞ্চচুৃল্লি জ্বালাতো রন্ধন শালার মধ্যিখানে।
আবার তার ডানায় ভর করে, বানতলা হয়ে ফ্লোরিডা যেতাম মৃতের পাশে দাঁড়াতে।
বলতাম, মৃতের সাথে তোমার লাল হলুদ মিশিয়ে নাও আবার আগুন হয়ে জন্মাতে,
বলতাম, তোমার তুমি জেগে ওঠো পৃথিবীর সমস্ত কিনারায়,
শত শত ফিনিক্স জন্ম নাও এই আকালের দিনে।

ফিনিক্স, আরো পাঁচশো বছর আগুন জ্বালো আরো আলো দিতে।
সব অন্ধকার ঘুচে যাক, বাস্তবতা তুমি ফিনিক্স হও।

Author: admin_plipi

48 thoughts on “ফিনিক্স

  1. অসাধারন। শেষ লাইনটা 10 বার পড়লাম। বাস্তবতা তুমি ফিনিক্স হও। দারুন লিখেছেন। লেখিকা কে অনেক অনেক ধন্যবাদ। ধন্যবাদ পাণ্ডুলিপি।

  2. প্রথম দুটি লাইন পড়লাম। এক রকম অনুভূতি। এর পর আর থামতেই পারলাম না। সত্যি যদি এই নিরপরাধ মানুষ্ গুলি কে আবার জীবন দান করা যেত, দেবতার জন্য তুলে রাখা অমৃত তো এদের জন্যে নয়, বাস্তবতা তুমি ফিনিক্স হও। দারুন। দারুন। দারুন। ছবিটি দেখে মনে কেঁদে উঠল। দারুন কম্বিনেশন করেছেন লেখিকা।

  3. লেখিকাকে সাধুবাদ। ধন্যবাদ পাণ্ডুলিপি।

  4. বাস্তবতা তুমি বিলীন হও। এই সব আর ভালো লাগছে না।

  5. মন ভারাক্রান্ত হলে গেলো। পঞ্চম পংক্তি টি বিষময় সত্য। লেখনি গুনে অসাধারন তুলে ধরেছেন। অনন্য সাধারণ।

  6. যখনই পরিযায়ী মানুষ গুলোর কথা ভাবি, মনে হয় এদের জন্য আমরা কিছুই করতে পারলাম না। অকালে এরা প্রাণ হারালো। আমাদের লজ্জা। মনেহয় সুকুমার রায় এর ভাষায় বলি, …”আমায় কেন লজ্জা দেছেন হেন?”

  7. পুরোটা পড়লাম। খুব ভালো লেখা।

  8. দৃপ্ত লেখনি। খিব সুন্দর। সত্যি সময় তুমি তো সদাশিব, পারোনা কালের চাকা ঘুরিয়ে দিতে সময়ে বিপরীতে? পারোনা অহেতুক মৃত্যু মিছিল রুখতে? আর একটি লেখা পড়লাম। বসুন্ধরার নবজাগরণ। খুব ভালো লাগলো। আপনাদের দেখা এ প্রকাশিত লেখাগুলো সত্যি ভালো মানের।

    1. সংশোধন: আপনাদের এখানে প্রকাশিত লেখাগুলো সত্যি ভালো মানের।

  9. লেখিকা আপনার মনের উদ্বেগ স্পষ্ট প্রখর প্রকাশ পাচ্ছে। শেষ লাইন তা অসাধারন। পুরো কবিতা টার জীবন কেন্দ্র। দারুন লেখাটি। আমার প্রোফাইলে শেয়ার করলাম।

  10. বলতাম… কিনারায় লাইনটি আর একটু জোরালো হলে মনে হয় লেখাটি অন্য মাত্রা পেত।

  11. খুব আশাবাদী লেখা। প্রথমে পড়লে নিরাশ ভরা লাগছিল। শেষের দুই লাই ভাবনার গতি ধরা পরিবর্তন করে দিলো। দারুন।

  12. অসাধারন শব্দ চয়ন। ততধিক ভালো উপমা। ছবিটি অনবদ্য

  13. অনেক দিন পর ভালো কবিতা পড়লাম। শেষ হয়ে গেল হটাৎ। আরো মন চাইছিল বড় হোক।

  14. সব যদি এক সকালে উঠে দেখতাম উধাও হয়ে গেছে, সব গত রাতের দুঃস্বপ্ন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.