বোকা মু্রগি আর বুদ্ধিমান মোরগের গল্প

বোকা মু্রগি আর বুদ্ধিমান মোরগের গল্প ।। লেখা : শরণ্যা মুখোপাধ্যায়

এক যে ছিল ছোট্ট, রোগা মুরগি! সে ছিল ভারি বোকা! সবাই তাকে দুরছাই করত! বলত, “তুই কিচ্ছু জানিস না!”চোরপুলিস খেলায় তাকে চোর হতে হত! বড় মুরগি তাকে দিয়ে অনেক কাজ করাত! তাই মুরগির ভারি দুঃখ। তার কেউ নেই! এইভাবে একদিন অন্য মুরগিদের জ্বালায় বিরক্ত হয়ে সে বনে গেল।সেখানে গিয়ে মুরগি খুব ঝামেলায় পড়ল! কোথায় থাকবে, কী খাবে? তখন তার কাছে এলো একটা লেজনাড়া চালাক শিয়াল। সে বন্দোবস্ত করে দিল! গাছের নিচে কোটরে! গ্রাম থেকে এনে দানা দিল। এমনি করে অনেকদিন গেল! মুরগি সুখেই আছে! মোটাসোটাও হয়েছে! শিয়াল রোজ খোঁজ নেয়!একদিন চান করতে নদীতে যাবার পথে মুরগির সঙ্গে দেখা হল ঝাঁকড়াচুলো মোরগের! তারপর থেকে মুরগি রোজ তার সঙ্গে গল্প করে! একদিন শিয়াল ব্যাপারটা দেখতে পেল! মুরগিকে ডেকে সাবধান করে বলল, “তুই ত বোকা, জানিস না! ওই ব্যাটা মোরগ আসলে তোকে মোটাসোটা দেখে ভুলিয়ে ভালিয়ে একদিন রোস্ট বানিয়ে খাবে!…”মুরগি শুনে ভয় পেয়ে গেল! ভাগ্যিস শিয়াল ছিল! মোরগ কত বদমাশ! শিয়াল তাকে খাবার দিয়েছে, থাকার ব্যবস্থা করেছে! শিয়াল কত্ত ভাল! তারপর থেকে মুরগি নাইতে গেল না! মোরগ এদিকে বসে ভাবে মুরগির হল কী! তারপর অনেক খুঁজে একদিন হাজির হল মুরগির কাছে!-“কী ব্যাপার মুরগি! তুমি নাইতে যাও না কেন?”মোরগকে দেখে মুরগি মুখ ভার করে বলল, “আমার খুশি!”মোরগ তখন বলল, “এত সেজেছ কেন?”মুরগি বলল, “আজ শিয়ালের বাড়ি নেমতন্ন!”এই বলে গটগটিয়ে মুরগি এগোল! মোরগ ছিল খুব বুদ্ধিমান! সে মুরগির পিছনে গেল শিয়ালের বাড়ি!ওদিকে শিয়ালের বাড়ি পৌঁছতেই শিয়াল আর তার ছানা ঘিরে ধরল মুরগিকে! মুরগি ভয় পেয়ে চেঁচিয়ে উঠল! শিয়াল খিকখিক করে হেসে বলল, “বোকা মুরগি, মোরগ কখনও মুরগি খায়! শিয়াল খায়! এদ্দিন তোকে খাইয়েদাইয়ে মোটা করেছি! মোরগকে ভাগিয়েছি! এখন তোকে আমরা খাব!”মুরগি খুব কাঁদল! মোরগের কথা মনে পড়ল তার!এই সময় ঝুঁটিওয়ালা মোরগ এসে শিয়াল আর তার ছানাকে তেড়ে গেল! নখ দিয়ে খুঁচিয়ে দিল সারা-গা! শিয়াল প্রাণপণে পালাল!তারপর থেকে মোরগ আর মুরগির খুব ভাব! শিয়াল আর ধারেপাশেও আসতে পারল না!

Author: admin_plipi

Leave a Reply

Your email address will not be published.